Skip to main content

Posts

Showing posts from January, 2019

কোকা-কোলা

কোকা-কোলা (ইংরেজি: Coca-Cola) হচ্ছে এক প্রকার কার্বোনেটেডকোমল পানীয়। বিশ্বব্যাপী বিভিন্ন রেস্তোরাঁ, জেনারেল বা ডিপার্টমেন্টাল স্টোর, ভেন্ডিং মেশিনসহ বিভিন্ন স্থানে কোকা-কোলা বিক্রি হয়। দ্য কোকা-কোলা কোম্পানির দাবি অনুসারে বিশ্বের ২০০টিরও বেশি দেশে কোকা-কোলা বিক্রি হয়।[১]যুক্তরাষ্ট্রেরজর্জিয়া অঙ্গরাজ্যের আটলান্টা শহরে অবস্থিত দ্য কোকা-কোলা কোম্পানি এই পানীয় উৎপাদন করে থাকে। কোকা-কোলা সংক্ষেপে কোক(Coke) নামে পরিচিত। যুক্তরাষ্ট্রে এটি ১৯৪৪ সালের ২৭ মার্চ থেকে দ্য কোকা-কোলা কোম্পানির রেজিস্টার্ড ট্রেডমার্ক। এছাড়া এটি ইউরোপ-আমেরিকায় কোলা ও পপ নামেও পরিচিত।[২]কোকা-কোলার উৎপত্তি হয়েছিলো একটি ওষুধ হিসেবে। উনিশ শতকে জন পেম্বারটন নামক একজন রসায়নবিদ কোকা-কোলার ফর্মুলা আবিস্কার করেন। ব্যবসায় কোকা-কোলাকে পরিবেশন ও বিপণন করেন ব্যবসায়ী আসা গ্রিগস ক্যান্ডেলার। তাঁর বাজারজাতকরণ কৌশলেই বিশ শতক থেকে কোকা-কোলা বিশ্বের কোমল পানীয়র বাজারে একটি প্রভাবশালী ও শক্তিশালী প্রতিদ্বন্দী হিসেবে চিহ্নিত।
Source: Wikipedia

গাজীপুর সদর উপজেলা

গাজীপুর সদর উপজেলাবাংলাদেশেরগাজীপুর জেলার একটি প্রশাসনিক এলাকা।
গাজীপুর জেলা মূলত ঢাকার উত্তর পাশের জেলা। গাজীপুর সদর উপজেলাটি গাজীপুর জেলার সর্ব দক্ষিণের উপজেলা। এ উপজেলার উত্তরে শ্রীপুর উপজেলা, দক্ষিণে গাজীপুর সিটি করপোরেশন, পূর্বেকালীগঞ্জ ও শ্রীপুর উপজেলা এবং পশ্চিমেকালিয়াকৈর উপজেলা অবস্থিত।এই উপজেলাটি ৫টি ইউনিয়নের সমন্বয়ে গঠিত।[২]এগুলো হলোঃমির্জাপুর;কাউলতিয়া;ভাওয়াল গড়;পিরুজালী;বাড়ীয়া
২০১১ সালের আদমশুমারি অনুসারে গাজীপুর সদর উপজেলার মোট জনসংখ্যা ১,৯৪,২৯৭ জন; যার মধ্যে পুরুষ ১,০১,৬৩৮ জন এবং নারী - ৯২,৬৫৯ জন।
এখানকার প্রধান শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো হলোঃস্কুল ও কলেজরাণী বিলাসমণি সরকারী বালক উচ্চ বিদ্যালয়,গাজীপুর ক্যান্টনমেন্ট বোর্ড উচ্চ বিদ্যালয়,জয়দেরপুর সরকারি গার্লস স্কুল,

তাজিংডং

তাজিংডং (বিজয় নামেও পরিচিত) বাংলাদেশেরএকটি পর্বতশৃঙ্গ। সরকারিভাবে এটি বাংলাদেশের সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গ [১] এটি বাংলাদেশের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় বান্দরবন জেলাররুমা উপজেলার সাইচল পর্বতসারিতে অবস্থিত। সরকারী হিসেবে তাজিংডং পর্বতের উচ্চতা ১,২৮০ মিটার (৪১৯৮.৪ ফুট) । [২]পূর্বে কেওক্রাডংকে দেশের সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গ মনে করা হত, আধুনিক গবেষণায় এই তথ্য ভুল প্রমাণিত হয়েছে। [৩] বর্তমানে বেসরকারী গবেষণায় সাকা হাফংপর্বতকে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গ দাবী করা হয়, তবে এটি এখনও সরকারি স্বীকৃত নয়। [৪]তাজিংডংউচ্চতা৮৮৪৮ ফুটঅবস্থানঅবস্থানসাইচল পর্বতসারি, 
রুমা উপজেলাবান্দরবন,বাংলাদেশভূবিদ্যাধরনপর্বতঅবস্থান ও উচ্চতাসম্পাদনাতাজিংডং বাংলাদেশের বান্দরবন জেলার রুমা উপজেলার রেমাক্রী পাংশা ইউনিয়নে সাইচল পর্বতসারিতে অবস্থিত। এটি বান্দরবান জেলার রুমা উপজেলার, উপজেলা সদর থেকে ২৫ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত এই পর্বতের অবস্থান। এ পর্বতের পাশে একটি উপজাতীয় পল্লী রয়েছে।নামকরণসম্পাদনাস্থানীয় উপজাতীয়দের ভাষায় ‘তাজিং’ শব্দের অর্থ বড় আর ‘ডং’ শব্দের অর্থ পাহাড়, এ দুটি শব্দ থেকে তাজিংডং পর্বতের নামকরণ করা হয়। সরকা…

পারদ

পারদ একটি ভারী, রুপালী সাদা ধাতু। অন্যান্য ধাতুর তুলনায় এর তাপ পরিবাহিতা কম কিন্তু তড়িত্ִ পরিবাহিতা বেশি।[২] ব্লক মৌল হওয়া সত্ত্বেও এর গলনাংক ও স্ফুটনাংক অস্বাভাবিকভাবে কম। এর কারণ কোয়ান্টাম মেকানিক্স দ্বারা ঠিকভাবে ব্যাখ্যা করা যায়। পারদের একটি বিশেষ ধরনের ইলেকট্রন বিন্যাস বিদ্যমান। এর ইলেকট্রন বিন্যাসে ইলেকট্রনসমূহ ক্রমান্বয়ে 1s, 2s, 2p, 3s, 3p, 3d, 4s, 4p, 4d, 4f, 5s, 5p, 5d, 6s অরবিটালে প্রবেশ করে। এরকম গঠনের কারণে এর পরমাণু থেকে ইলেকট্রন অপসারণ অনেক কঠিন হয়ে পড়ে। ফলে পারদের ধর্মের সাথে মৌলিক গ্যাসসমূহের সামন্জস্য দেখা যায়, যেমন এদের পরমাণুসমূহের মধ্যে দুর্বল আকর্ষন বল থাকে তাই এরা কক্ষ তাপমাথাতেই তরল অবস্থায় থাকে।তথ্যসূত্র: উইকিপিডিয়া

অন্ধ্রপ্রদেশ,ভারত

অন্ধ্রপ্রদেশ (/ˌɑːndrəprəˈdɛʃ/) হল ভারতের ২৯টি রাজ্যের অন্যতম। এই রাজ্য ভারতের দক্ষিণ-পূর্ব উপকূল অঞ্চলে অবস্থিত। এই রাজ্যের আয়তন ১,৬০,২০৫ কিমি২ (৬১,৮৫৫ মা২)। এটি আয়তনের হিসেবে ভারতের অষ্টম বৃহত্তম রাজ্য। ২০১১ সালের জনগণনা অনুসারে, অন্ধ্রপ্রদেশের জনসংখ্যা ৪৯,৩৮৬,৭৯৯। জনসংখ্যার হিসেবে এটি দেশের দশম বৃহত্তম রাজ্য। অন্ধ্রপ্রদেশের উত্তরে তেলঙ্গানা ও ছত্তীসগঢ়, দক্ষিণে তামিলনাড়ু, উত্তর-পূর্বে