Skip to main content

সমাজ

সমাজ মূলত এমন এক ব্যবস্থা বোঝায়, যেখানে একাধিক চরিত্র একত্রে কিছু নিয়ম-কানুন প্রতিষ্ঠা করে একত্রে বসবাসের উপযোগী পরিবেশ গড়ে তোলে। মানুষের ক্ষেত্রে একাধিক ব্যক্তি একত্র হয়ে লিখিত কিংবা অলিখিত নিয়ম-কানুন তৈরি করে; এরকম একত্র বসবাসের অবস্থাকে সমাজ বলে। মানুষ ছাড়াও ইতর প্রাণীর ক্ষেত্রে সমাজের অস্তিত্ব দেখা যায়, তবে সেখানে মানুষের মতো কাঠামোবদ্ধ সমাজের দৃষ্টান্ত নজরে আসে না।

সমাজের দুটো গুরুত্বপূর্ণ উপাদান হলো:

  1. ট্যাবু বা নিষিদ্ধ আচার, ও
  2. টোটেম

সমাজের মধ্যে যেমন সদস্যদের মধ্যে থাকে পরস্পর সৌহার্দ্য, সহযোগিতা, মমত্ব ; তেমনি তৈরি হতে পারে ঘৃণা, লোভ, জিঘাংসা। তাই সমাজের মধ্যে শৃংখলা ধরে রাখার স্বার্থে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই অলিখিতভাবে তৈরি হয় কিছু নিয়ম, অধিকাংশ ক্ষেত্রেই যার লঙ্ঘন চরম অসম্মানজনক, এবং সমাজের দৃষ্টিতে শাস্তিযোগ্য। তবে নিঃসন্দেহে সুন্দর ও সুষ্ঠু সমাজ ব্যবস্থার জন্য সৌহার্দ্য, সহযোগিতা একান্ত দরকার।

তথ্যসূত্রঃ উইকিপিডিয়া

Popular posts from this blog

Notice

20/01/2017
“বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম”
জনাব,
আসসালামুআলাইকুম,
আসছে আগামী ২৩-০১-১৭ ইং তারিখ রোজ
শুক্রবার ০৪.০০ ঘটিকায়
সিটপাড়া পাবলিক স্কুল মাঠ
প্রাঙ্গনে সিটপাড়া এডুকেশন সোসাইটির
উদ্যোগে এক আলোচনা ও মতবিনিময়
সভার আয়োজন করা হইয়াছে।
উক্ত সভায় আপনার/আপনাদের
উপস্থিতি একান্তভাবে কাম্য।
ভিজিট করুন : www.sedusociety.tk

#Update_1

এখন আমরা ফেসবুকের গ্রুপ ছাড়াও গুগল সার্চেও ছড়িয়ে পড়েছি। মূলত আমাদের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটটি Launch করার পর থেকে আমরা এই গৌরব অর্জন করেছি। আশা করি এখন থেকে আমাদের সদস্যগণের আমাদের ফেসবুকের লোকেশন পেতে কোনো সমস্যা হবে না। তাছাড়া আমাদের ক্লাবের সর্বশেষ আপডেট পেতে আমাদের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে চোখ রাখুন☺

Society Rules

১।
সকল সদস্যের অক্ষরজ্ঞান সম্পন্ন হতে হবে।
২।
প্রত্যেক সভায় সদস্যদের উপস্থিত থাকতে হবে।
৩।
সোসাইটি কেন্দ্রীক সকল সমস্যা আলোচনার মাধ্যমে সমাধান করতে হবে।
৪।
ঐক্যবদ্ধভাবে এলাকার উন্নয়নমূলক কাজে অংশগ্রহন করতে হবে।
৫।
নিজের স্বার্থের চাইতে সোসাইটির স্বার্থকে বেশী মূল্যায়ন করতে হবে।
৬।
সোসাইটি পরিপন্থি কোন কথা বা কাজে জড়ানো যাবে না।
৭। পরপর ৩ দিন সভায় অনুপস্থিত থাকলে সভাপতির কাছে জবাবদিহিতা করতে হবে।বিঃদ্রঃসোসাইটির প্রয়োজনে যেকোন নিয়ম বা সময় পরিবর্তিত হতে পারে।